মাননীয় প্রতিমন্ত্রী ধর্ম বিষয়ক মন্তণালয় ও মাননীয় চেয়ারম্যান, হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট আলহাজ্ব এডভোকেট শেখ মো: আব্দুল্লাহর মৃত্যুতে হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট গভীর শোক প্রকাশ করছে।   মাননীয় প্রধানমন্ত্রী হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টে অনুদান প্রদানের জন্য দানশীল সকলের নিকট আহ্বান জানিয়েছেন।”করোনা” প্রতিরোধে ধর্মসভা বা ধর্মীয় জনসমাগম না করতে অনুরোধ করা হচ্ছে।হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের তিন বছর মেয়াদী নতুন ট্রাস্টিবোর্ড ১৪/০১/২০২০ তারিখে গঠন করা হয়েছে।   ট্রাস্টের সকল তথ্য জানতে ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেইজ দেখুন্ সরকারি ব্যবস্থাপনায় দেশে/বিদেশে তীর্থ  করতে ওয়েবসাইট হতে ফরম ডাউনলোড করে আবেদন করুন  ট্রাস্ট হতে অনুদান গ্রহণে কোন অর্থ/ফি দিতে হয় না    সরকারের রাজস্ব বাজেটের আওতায় ২২৮.৬৯ কোটি টাকায় সমগ্র দেশে সনাতন ধর্মালম্বীদের জন্য ১৮১২ টি মন্দির সংস্কার কার্যক্রম চলছে।  ৯.৯২৪৫ কোটি টাকায় চট্টগ্রামসহ ৪টি জেলায় ১৪০টি; ৩.৫৮৬২ কোটি টাকায় হবিগঞ্জ জেলার ৪৮টি মন্দির ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সংস্কার ৩১.১২.২০১৯ সমাপ্ত হয়েছে। রাজস্ব বাজেটে ৯.৭৫৬৫ কোটি টাকায় শ্রীশ্রী ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির ও শ্রীশ্রী সিদ্ধেশ্বরী কালী মন্দির  উন্নয়ন ও সংস্কার প্রকল্পগুলো বর্তমানে  হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।    দুঃস্থ হিন্দু ও মন্দিরে সহায়তা গ্রহণ, মন্দিরের নাম নিবন্ধন এবং দেবোত্তর সম্পত্তি তালিকাভুক্ত করতে নির্ধারিত ফরম www.hindutrust.gov.bd ওয়েব সাইট হতে ডাউনলোড ও প্রিন্ট করে প্রয়োজনীয় তথ্য সহ আবেদন করুন। করোনায় মৃত হিন্দুদের সৎকার করতে অসুবিধা হলে ০১৫৫৬৪৬৪৯৮৯ বা ০১৭১৬৫০২১৫৯ নম্বরে ফোন করুন

মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৭ মার্চ ২০১৮

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৯৮তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষ্যের আয়োজিত আলোচনা ও প্রার্থনা সভা


প্রকাশন তারিখ : 2018-03-17

প্রেস নোট

 

          জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৯৮তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস ২০১৮ উপলক্ষ্যে শনিবার সকাল ১০.০০ ঘটিকায় ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সংবিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে ট্রাস্ট কার্যালয়ের সভাকক্ষে এক আলোচনা ও প্রার্থনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভার শুরুতে মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম শীর্ষক প্রকল্পের শিশুদের নিয়ে এক চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় এবং বঙ্গবন্ধুর ৯৮তম জন্মবার্ষিকি উপলক্ষ্যে কেক কাটা হয়। চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা শেষে বঙ্গবন্ধুর জীবনীর উপর ডকুমেন্টরী ভিডিও প্রদর্শন করা হয। ডকুমেন্টরী প্রদর্শন শেষে ট্রাস্টের সভাকক্ষে আলোচনা ও প্রার্থনা সভা শুরু করা হয়। হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সম্মানিত সচিব শ্রী রঞ্জিত কুমার দাস -এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা ও প্রার্থনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্মানিত ট্রাস্টি অধ্যাপক শ্রী নিরঞ্জন অধিকারী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সম্মানিত ট্রাস্টি শ্রী শ্যামল ভট্টাচার্য্য ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব জনাব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম শীর্ষক প্রকল্পের শিক্ষিকাগণ ও ঢাকাস্থ বিভিন্ন মন্দিরেএ সভাপতি/সম্পাদক ও প্রতিনিধিগণ। অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ফিল্ড অফিসার শ্রী প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস।

 

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে রাষ্ট্র ও জনগনের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ প্রার্থনা পরিচালনা করেন দ্বিজমনি গৌরাঙ্গ দাস ব্রহ্মচারী, পরিচালক, জাগ্রত ছাত্র সমাজ, ইসকন, ঢাকা। প্রার্থনা সভায় ১৯৭১ সালের রক্তক্ষয়ী মহান মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করা হয়। এছাড়া জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের সকল শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করা হয়। দেশের সুখ, সমৃদ্ধি ও উন্নয়নের জন্য সৃষ্টিকর্তার নিকট প্রার্থনা জানানো হয়।

 

উপস্থিত অতিথিবৃন্দ এ দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরেন এবং বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে শিশুদেরকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে শিক্ষিত করার আহবান জানান। পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ যাতে প্রতিটি শিশু লালন করতে পারে সেদিকে নজর রেখে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বক্তাদের পক্ষ থেকে সকল নাগরিকের প্রতি আহবান জানানো হয়। আলোচনা ও প্রার্থনা সভা শেষে ট্রাস্টের পক্ষ থেকে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


Share with :

Facebook Facebook